এবারের সংসদেও জাতীয় পার্টিই প্রধান বিরোধী দল হচ্ছে, এমন ইঙ্গিত দিয়েছেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। এই ইঙ্গিতকে স্বাভাবিক হিসেবে দেখছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদের। তবে ঘোষণা দেওয়া হোক না–হোক জাতীয় পার্টি বিরোধী দলের ভূমিকা পালন করবে বলে জানান দলটির চেয়ারম্যান।

আজ সোমবার বিকেলে রংপুর নগরের সেনপাড়ায় পৈতৃক বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে জি এম কাদের এসব কথা বলেন।

 

‘দ্বাদশ জাতীয় সংসদে বিরোধী দল হচ্ছে জাতীয় পার্টি’ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের এই মন্তব্যকে ‘স্বাভাবিক’ বলে উল্লেখ করেন জি এম কাদের। তিনি বলেন, ‘এ বিষয়ে এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে চিঠি পাইনি। তবে জাতীয় পার্টি কার্যকর বিরোধী দলের ভূমিকা পালন করবে। সেটা আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা আসুক না–আসুক।’

দেশের সার্বিক পরিস্থিতি প্রসঙ্গে জি এম কাদের বলেন, ‘দেশের সার্বিক পরিস্থিতি ভালো না। দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতিতে মানুষের কষ্ট বাড়ছে। লাগামহীনভাবে নিত্যপণ্যের দাম বাড়ছে। মানুষের আয় কমছে। প্রতিদিন ডলারের বিপরীতে আমাদের টাকা দুর্বল হচ্ছে। সেই সঙ্গে মানুষের চাকরির সুযোগ কমে যাচ্ছে। তাতে করে দেশের মানুষের অবস্থা ভালো নয়। মানুষের মধ্যে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে। এর থেকে উত্তরণ মানুষ আশা করে

জাপার চেয়ারম্যান বলেন, ‘এই নির্বাচনের মাধ্যমে রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা আসবে কি না, তা এখন পর্যন্ত নিশ্চিত হতে পারিনি। তবে সামনের দিকে এই সরকারের চ্যালেঞ্জ হলো দ্রব্যমূল্য কমানো এবং রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা।’

এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক ও কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুর রাজ্জাক, মহানগর জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক ও কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান এস এম ইয়াসীর, কেন্দ্রীয় সাংস্কৃতিক সম্পাদক আজমল হোসেন প্রমুখ।

পোস্টটি শেয়ার করুনঃ